May 21, 2024 7:25 am

হটাৎ করে হজ ফ্লাইটের বিমানে ভয়াবহ আগুন

Advertisement

হটাৎ করে হজ ফ্লাইটের বিমানে ভয়াবহ আগুন।
ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় এয়ারলাইন গারুদা বিমানের ইঞ্জিনে আগুন লেগে বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করতে বাধ্য হয়েছে। বোর্ডে 468 জন তীর্থযাত্রী ছিলেন। গারুদার সিইও ইরফান সেটিয়াপুত্র এক বিবৃতিতে বলেছেন, “উড্ডয়নের পরপরই বিমানের একটি ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়।” ভ্রমণের আগে হয়তো ঠিকমতো চেক করা হয়নি। পাইলট আগুন দেখে অবিলম্বে অবতরণের সিদ্ধান্ত নেন। 450 তীর্থযাত্রী ছাড়াও বিমানটিতে 18 জন ক্রু সদস্য ছিলেন।

তবে তাদের কেউ আহত হয়নি। ইরফান বলেন, গরুড় অবতরণের দুই ঘণ্টা পর যাত্রীদের জন্য একটি নতুন ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেন। যে প্লেনটিতে আগুন লেগেছিল সেটিও মেরামতের জন্য মাটিতে থাকতে হয়েছিল। উল্লেখ্য যে গরুড়ের 60 শতাংশ শেয়ার ইন্দোনেশিয়া সরকারের। করোনাভাইরাস মহামারী চলাকালীন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে পরিষেবাটি বিশাল আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এই হারের ধাক্কা এখনও পুরোপুরি কাটেনি তার জন্য।

বিশ্বের বৃহত্তম দ্বীপ দেশ ইন্দোনেশিয়ার শত শত দ্বীপ রয়েছে। দেশটির বাসিন্দারা এক দ্বীপ থেকে অন্য দ্বীপে যাওয়ার জন্য বিমানের ওপর নির্ভর করে। যাইহোক, গত দুই বছরে বেশ কয়েকটি বিমান দুর্ঘটনার কারণে অনেক ইন্দোনেশিয়ানকে অভ্যন্তরীণ ভ্রমণের পক্ষে বিমান ভ্রমণ ত্যাগ করতে বাধ্য করেছে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement