June 16, 2024 8:19 pm

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে ২০ রানে পিছিয়ে থাকার কথা বলেছেন শান্ত

Advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে ২০ রানে পিছিয়ে থাকার কথা বলেছেন শান্ত।আবারো খেলায় হেরে খারাপ লাগছে বাংলাদেশের অধিনায়কদের। কীভাবে তারা আরও রান করতে পারত তা নিয়ে ভাবতে থাকে। যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে একই অবস্থা অনুভব করেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনি আরও বলেন, হিউস্টনের একজন খেলোয়াড় আউট হওয়াটা তারই দোষ।

বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে একটি ক্রিকেট খেলা খেলে এবং যুক্তরাষ্ট্র ৫ উইকেটে জয়ী হয়।

ক্রিকেটে 19 তম র‌্যাঙ্কিং দলটি সত্যিই দুর্দান্ত বোলিং করে বাংলাদেশকে খুব বেশি রান করা থেকে বিরত করেছিল। তারপর, যখন তাদের ব্যাট করার পালা, তারা প্রথমে খুব একটা ভালো করতে পারেনি। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত, কোরি অ্যান্ডারসন এবং হারমিত সিংয়ের দুর্দান্ত টিমওয়ার্কের জন্য তারা গেমটি জিতেছে।

Advertisement

প্রথমবারের মতো ক্রিকেটে একে অপরের বিপক্ষে খেলছে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র। ম্যাচে বাংলাদেশ ভালো না করলেও অধিনায়ক বলেন, বেশি রান করলে তারা জিততে পারত।

আমরা যখন ব্যাট করতে যাচ্ছিলাম তখন আমরা ভালো বল মারতাম না। আমরা প্রথমে ঠিক করেছি, কিন্তু তারপর আমরা কিছু খেলোয়াড়কে হারিয়েছি। আমি বিশ্বাস করি যদি আমরা আরও 20 পয়েন্ট স্কোর করতাম, তাহলে খেলাটি আরও ভাল হয়ে উঠত।

অধিনায়ক বলেন, খেলার শুরুটা ভালো হলেও শুরুতে বাংলাদেশ মাত্র ৩৭ রান করে।

খেলার শুরুতে লিটন ও শান্তরা বেশ কঠিন সময় পার করছেন। এই ম্যাচে দ্বিতীয়বার সুযোগ পেলেও বেশি রান করতে পারেননি লিটন। তিনি 15 বলে মাত্র 14 রান পান। শান্তারাও সংগ্রাম করেছেন, ১১ বলে মাত্র ৩ রান করেন।

সৌম্য সরকার শুরুতে ভালো কাজ করলেও খুব বেশি রান করতে পারেননি। ১৩ বলে ২০ রান করে আউট হন তিনি। এরপর খেলার মাঝখানে ৬ রান করতে ১২ বল নেন সাকিব আল হাসান।

প্রশ্ন হল কেন ব্যাটাররা বলকে জোরে আঘাত করার বা প্রচুর রান করার চেষ্টা করছিল না। শান্তা ভেবেছিল কারণ তারা যে মাঠে খেলছিল তা খুব একটা ভালো ছিল না।

আমি মনে করি না ব্যাটারদের রান তাড়া করতে সমস্যা হয়েছিল। এমনকি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচেও আমরা কঠিন পিচে খেলেছি। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল একটি ইতিবাচক মনোভাব, এবং আশা করি, ব্যাটাররা শীঘ্রই আবার ভাল খেলতে শুরু করবে।

বিপদে পড়লে বাংলাদেশকে সাহায্য করেন তাওহিদ হৃদয় ও মাহমুদউল্লাহ। হৃদয় 47 বলে 58 রান করলেও তার শেষ কয়েক রান করতে অনেক সময় লেগেছে। ২২ বলে ৩১ রান করেন মাহমুদউল্লাহ।

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা বোলিংয়ে সত্যিই ভালো এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলা জিতবে বলে আশা করা হচ্ছে যদিও তাদের মাত্র 153 রান করতে হবে। তারা তাদের দলের জন্য একটি ভাল পরিকল্পনা করেছে। 10 রাউন্ড খেলে তারা 66 রান করেছিল। মোট 100 রানে পৌঁছতে তাদের আরও 16 রাউন্ড আছে।

খেলার শেষ চার ওভারে দলের প্রয়োজন ছিল ৫৫ রান। কিন্তু যে খেলোয়াড় তাদের জিততে সাহায্য করার কথা ছিল সে আউট হয়ে গেল, আর অন্য একজন খেলোয়াড়ও খুব একটা ভালো করতে পারেনি। মাত্র তিন বল বাকি থাকতেই খেলা জিতে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। বোলারদের এই কঠিন পরাজয়ের কথা ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করা উচিত এবং পরের ম্যাচে মনোযোগ দেওয়া উচিত।

আমাদের স্পিনাররা দারুণ বোলিং করেছে। আমাদের ফাস্ট বোলাররা খেলার শেষে লড়াই করেছিল, তবে আমরা আশা করি তারা পরের ম্যাচে আরও ভালো করবে। সূত্র-বিডিনিউজ২৪

Advertisement
Advertisement