April 24, 2024 11:41 am
রহস্যময় ইঙ্গিত

মোসাদ্দেকের এ কেমন রহস্যময় ইঙ্গিত, বিনোদন নাকি আসিতেছে’!

Advertisement
Advertisement

মোসাদ্দেকের এ কেমন রহস্যময় ইঙ্গিত, বিনোদন নাকি আসিতেছে’!সাবেক অধিনায়ক তামিম ইকবাল এবং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজের ফোনালাপ ফাঁস নিয়ে হঠাৎ হইচই পড়ে গেছে দেশ বিদেশের ক্রিকেটাঙ্গনে। গতকাল রাতে দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশনে গুরুত্বপূর্ণ দুই ক্রি’কেটারের কলরেকর্ডটি প্রচারিত হয় । যা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে। অনেকেরই ধারণা, কোনো প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনী প্রচারণার কৌশল ছিল হয়তো।

তবে ওই কলরেকর্ডের নেপথ্য ঘটনা কী তা খোলাসা করতে বুধবার (২০ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টায় লাইভে আসছেন তামিম। এর মধ্যেই আরেক ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ফেসবুক স্টোরি যেন আলোচিত ফোনালাপ ইস্যুতে নতুন সংযোজন। যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘দেশি না বেশি লাভ। অপেক্ষা করেন বিনোদন আসতেছে’। সঙ্গে হাসির ইমোজি জুড়ে দিয়েছেন এই ক্রিকেটার। মোসাদ্দেকের এমন রহস্যময় ফেসবুক স্টোরির পর অনেকেরই জিজ্ঞাসা, কীসের বিনোদনের ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়াও ‘দেশি না বেশি লাভ’, এখানে আকারে ইঙ্গিতে যে, মোবাইল আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান নগদকেই বুঝিয়েছেন সেটা পরিস্কার। বাকি বিষয় হয়তো তামিমের লাইভের পরই পুরোপুরি পরিস্কার হওয়া যাবে। আলোচিত সেই ফোনালাপে তামিম এবং মিরাজকে কথা বলতে শোনা গেলেও, সেখানে পরোক্ষভাবে ছিলেন মুশফিকুর রহিমও। ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্যে মুশফিকের কোনো আচরণে ক্ষুব্ধ হওয়ার কথা মিরাজকে জানান তামিম।

ওই ফোনআলাপের সারাংশ দাঁড় করালে দেখা যায়– মুশফিক ও তামিমের দল থেকে বেরিয়ে নতুন কোনো দল গঠন করছেন। যে বিষয়টি মানতে পা’রছেন না তামিম, সে কারণে তিনি মুশফিককে দেখে নেবেন বলে হু’মকিও দেন। এই সময় পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন মিরাজ। উ’ল্লেখ্য, তামিম-মিরাজের ফো’নালাপটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতিমধ্যে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে। অনেকেই বিষয়টি বি’জ্ঞাপনী প্রচারণা বলে উল্লেখ করতে থাকেন।

নইলে এমন ফোনালাপ ফাঁস হয় কীভাবে সেই প্রশ্নও তোলেন তারা। এর আগেও তামিম এবং সাকিব আল হাসানের মধ্যকার দ্বন্দ্ব একপাশে রেখে দুজনকে একত্রে দেখা যায়। পরবর্তীতে জানা যায় সেটি ছিল একটি বিজ্ঞাপন দৃশ্যের অংশ। এবারও তেমন কিছুই ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে!

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x