May 21, 2024 7:24 am
বাই থানির

এবার প্রতারণার অভিযোগে সানভিস বাই থানির শোরুমটি সিলগালা করা হয়েছে

Advertisement

এবার প্রতারণার অভিযোগে সানভিস বাই থানির শোরুমটি সিলগালা করা হয়েছে।ফ্যাব্রিক রিটেইলিং কোম্পানি সানভিসের বিরুদ্ধে তানির বিরুদ্ধে দেশি কাপড় পাকিস্তানি বলে চড়া দামে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের বিরুদ্ধে প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হওয়ায় রাজধানীর গুলশানে সানভিস বাই থানি শোরুম সিলগালা করেছে জাতীয় ভোক্তা সুরক্ষা কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, গুলশান পুলিশ প্লাজা মার্কেটে বিশেষ প্রচারের কারণে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১৩ মে) এ অভিযান চালানো হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ার জনপ্রিয় মুখ রোবায়েত ফাতিমা থানি। রাজধানীতে তার একাধিক শোরুম রয়েছে। এছাড়াও অনলাইনে পোশাক এবং প্রসাধনী বিক্রি করে। তবে এবার আলোচনায় এসেছেন প্রতারণার অভিযোগে। ভোক্তা অধিকার কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, তৈরি পোশাক বিক্রির লাইসেন্স পাওয়া গুলশানের দোকানগুলোতে অবৈধভাবে প্রসাধনী বিক্রি হয়।

Advertisement

ভোক্তা বিষয়ক অধিদফতরের উপ-পরিচালক আবদুল জব্বার মণ্ডল বলেন, কোম্পানির বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ পেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। ইন্টারনেট এবং এসব দোকানে অনেক দিন ধরেই দেশি কাপড়ের দাম বেড়েছে। তারা অনলাইনে পাকিস্তানি পোশাক বিক্রি করে। তবে দেশি ড্রেস ফ্রিতে ডেলিভারি পাবেন। এভাবে প্রতারিত হচ্ছে শত শত গ্রাহক।

তিনি বলেন, জালিয়াতির অভিযোগ থাকলে তাদের শুনানির সময় দেওয়া হয়। তারা এমনকি এটি দেখেনি এবং প্রতিক্রিয়া জানায়নি। যেহেতু তারা সাড়া দেয়নি বা উপস্থিত হয় নি, তাই আমরা বিশ্বাস করি এই অভিযোগগুলো সত্য। আমি এখানে এসে এর প্রমাণ পেয়েছি। তারা পাকিস্তানি পোশাকের কোনো নথি বা প্রমাণ দিতে পারেনি। আপনার কাছে শুধুমাত্র ব্যবসা পরিচালনার লাইসেন্স আছে, অর্থাৎ একজন নিয়মিত পোশাক বিক্রেতা হিসেবে।

ভোক্তা সম্পর্ক বিভাগের উপ-পরিচালক বলেন, আমরা তাদের শোরুম আপাতত বন্ধ করে দিয়েছি। এখন তারা নথি নিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ কর্তৃপক্ষের কাছে আসবে এবং সাক্ষ্য দেবে। কতজন গ্রাহকের কাছে এই পোশাকগুলি বিতরণ করা হয়েছিল সে সম্পর্কেও তথ্য দেওয়া হয়।

Advertisement
Advertisement