হারিস রউফ ইস্যুতে যেইসব সিদ্ধান্ত জানাল পিসিবি

বিতর্কের আরেক নাম যেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। কখনো বোর্ড প্রে’সিডেন্ট, কখনো বা নির্বাচক, কোনো না কোনো ইস্যুতে বিতর্ক লেগেই আছে দেশটির ক্রিকেটে। আর ক্রিকেটারদের মাঝে কোন্দলের খবরটাও যে একেবারেই নিয়মিত। সম্প্রতি সেটা বেড়েছিল প্রধান নির্বাচক ওয়াহাব

রিয়াজের সূত্র ধরে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে হারিস রউফ শেষ সময়ে এসে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন, এমন মন্তব্য করেছিলেন ওয়া”হাব। বিপরীতে হারিস জানিয়েছিলেন, অজিদের বিপক্ষে খেলা নিয়ে কোনো প্রতিশ্রুতিই তিনি দেননি। মাত্র ১ টেস্ট খেলা হারিস চেয়েছেন সা*দা বলে বেশি নজর দিতে। যে কা””রণে অ””স্ট্রেলিয়ান ঘ””*রোয়া

ক্রিকেটের বড় আসর বিগ ব্যাশে খেলতে চেয়েছিলেন এই ফাস্ট বোলার। তবে পাকিস্তানের নির্বাচক ওয়াহাবের কথা ছিল স্পষ্ট। স’বার আগে দেশকেই প্রাধান্য দিতে হবে। এমনকি বিগ ব্যাশে হারিস খেলতে যেতে পা””রবেন কিনা তাও ঝু'”লিয়ে রেখেছিল পিসিবি। পা””কিস্তানের ঘরয়া

টি-টোয়েন্টি আসরের পরেই কেবল অনুমতি পাওয়া যাবে এমন কথাও উঠেছিল জোরেশরে। আবার পাকিস্তানের বোর্ড প্রেসিডেন্ট জাকা আশরাফ বলেছিলেন, পি”এসএলের বাইরে কেবল একটিমাত্র লিগেই খেলার অনুমতি পাবেন ক্রিকেটাররা। পুরো বিষয় নিয়ে এত জ””লঘোলা করার পর অ”বশেষে বিগ ব্যাশ শু”রুর আগেই

বোর্ড থেকে অ***নাপত্তিপত্র বা এনওসি দেওয়া হলো হারিস রউফকে। তার সঙ্গে এনওসি পেয়েছেন উসামা মীর এবং জামান খান। তাদের বক্ত**ব্য, সব পক্ষের স্বার্থকে গু”রুত্ব দিতেই এই সি”দ্ধান্ত। বিবৃতিতে পিসিবি বলেছে, ‘হা”রিস রউফ, জামান খান এবং উ”সামা মিরকে বিবিএল খেলার জন্য

ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। ক্রিকেটারদের চাপ এবং জাতীয় দলের সূচি মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ক্রিকেটের সব প”ক্ষের স্বার্থকে গুরুত্ব দিতে চায় পিসিবি। যদিও ক্রিকেটারদের ম্যাচ খেলার সংখ্যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ ইন্ডিয়র মা টিতে সদ্য শেষ হওয়া বিশ্ব*কাপে সেরা ফ”’র্মে

ছিলেন না রউফ। প্রচুর রান দিয়েছেন প্রায় সব ম্যাচেই। স্বাভাবিক ভাবে কম স”মালোচনা হয়নি তাকে নিয়ে। সেই বিতর্কটা আরও উসকে দিয়েছে তার সাদা পোশাকের ক্রিকেটে আপত্তির কথায়। তার পরেও অবশ্য পাকিস্তান ছাড় দিয়েছে তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *