1. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  2. msthoney406@gmail.com : ২৪ ঘন্টা খবর : ২৪ ঘন্টা খবর
মসজিদে নামাজের সময় এসি ব্যবহার করা যাবে বাকি সময় বন্ধ রাখার অনুরোধ! - ২৪ ঘন্টা খেলার খবর!
সর্বশেষ:
অবাক ক্রিকেটবিশ্ব, ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ছে দক্ষিণ আফ্রিকা প্লেয়ার্স ড্রাফটে পর এবার সরাসরি চুক্তিতে এই ভয়ংকর লেগ স্পিনার দলে নিল ঢাকা ডমিনেটর্স অবশেষে নতুন চমক দিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে দল ঘোষণা করলো নিউজিল্যান্ড সুখবর দিলেন নেইমার নকআউটের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখল জার্মানি ‘বিশ্বকাপ ব্যর্থতার জন্য আইপিএল দায়ী নয়’ কাতার বিশ্বকাপের শেষ ষোলো নিশ্চিত করতে সুইজারল্যান্ডের মুখোমুখি হতে না হতেই অতীতের রেকর্ড নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় ব্রাজিল ১ নজরে দেখেনিন গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ড্র করেও যেভাবে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করতে পারে মেসির আর্জেন্টিনা শফিকুলের শেষ ওভারের নাটকীয় ৬ রানের জয়ে সাউথ জোনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন মাহমুদউল্লাহ নর্থ জোন সাকিবের দুর্দান্ত বোলিংয়ের পরও টানা হারের স্বাদ পেলো বাংলা টাইগার্স

মসজিদে নামাজের সময় এসি ব্যবহার করা যাবে বাকি সময় বন্ধ রাখার অনুরোধ!

  • আপডেট করা হয়েছে: সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০২২
  • ৩৭৫ বার পঠিত:

মসজিদে এসি একেবারে বন্ধ রাখতে বলা হয়নি জানিয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, শুধুমাত্র নামাজের সময় ছাড়া বাকি সময় বন্ধ রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে। সোমবার

সচিবালয়ে দেশে বিদ্যুৎ সাশ্রয় ইস্যুতে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিমন্ত্রী এই তথ্য জানান। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শুধু মসজিদ নয়, উপাসনালয়ের কথা বলা হয়েছে। মসজিদ, মন্দির, গির্জা সব উপাসনালয়ে

তারা যাতে সাশ্রয়ীভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন। কারণ আমরা জানি, প্রচুর পরিমাণে এসি লাগানো হয়েছে। নামাজের সময় খুব মৃতব্যয়ী হয়ে যদি এই গরমের সময়ে এসি চালান এবং নামাজ শেষে এসিটা বন্ধ করতে হবে। আমার

সাজেশন এটাই, আমরা এভাবেই চিন্তাভাবনা করছি। মসজিদসহ সব উপাসনালয়ে এসির ব্যবহার কমানো, যত্রতত্র সরকারি অফিসগুলোতে এসি না চালানো, সরকারি গাড়িতে জ্বালানি তেলের ব্যবহার কমানো এবং অনলাইনে মিটিং করার সিদ্ধান্তের দিকে সরকার যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। প্রতিমন্ত্রী বলেন,

বিশ্বব্যাপী জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে আমাদের হয়তো দিনে এক থেকে দেড় হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুতের ঘাটতি হবে। সেই ঘাটতি মেটাতে এলাকাভিত্তিক এক ঘণ্টার মতো লোডশেডিং করা হবে। তিনি আরও বলেন, আমরা এক সপ্তাহ পরিস্থিতি

পর্যবেক্ষণ করে দেখব। যদি এতেই আমাদের সাফিসিয়েন্ট মনে হয়, তাহলে তো সমস্যা নেই। নইলে আরও এক ঘণ্টা পর্যন্ত লোডশেডিং করা হতে পারে। এর পাশাপাশি আমাদের সবাইকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে হবে।

খবরটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 24hourskhobor.com
Site Customized By NewsTech.Com