ব্রেকিং নিউজ:ব্রাজিলকে হারিয়ে ২০২৪ অলিম্পিকের মূল পর্বে আর্জেন্টিনা!

সমীকরণ ছিল এমন, ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মধ্য থেকে যেকোনো একটি দল খেলতে পারবে অলিম্পিকে। দুদলের মুখোমুখি লড়াইয়ে যে জিতবে সেই দল উঠবে অলিম্পিকের চূড়ান্ত পর্বে । শেষ পর্যন্ত ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারিয়ে ২০২৪ প্যারিস অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করলো আর্জেন্টিনা। সমীকরণটা আর্জেন্টিনার তুলনায় ব্রাজিলের

জন্য সহজ ছিল । ম্যাচটি ড্র করতে পারলেই অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করতে পারতো সেলেওসাওরা । অন্যদিকে আর্জেন্টিনার জন্য ছিল ডু অর ডাই ম্যাচ । অলিম্পিকের আঞ্চলিক বাছাইয়ের এই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত জয় হয়েছে আর্জেন্টিনারই। রোববার বাংলাদেশ সময় দিনগত রাত আড়াইটায় ভেনেজুয়েলার এস্তাদিও ব্রিদিগো

ইরিয়ার্তে স্টেডিয়ামে ‘অলিখিত ফাইনালে’ মাঠে নামে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। পুরো ম্যাচেই দাপট দেখিয়ে খেলেছে আর্জেন্টিনা। প্রতিপক্ষের পোস্টে ১৪টি শট নেয় তারা। বিপরীতে ব্রাজিল নিয়েছে নয়টি শট। আর্জেন্টিনার বল পজিশন ছিল ৬১% আর ব্রাজিলের বল পজিশন ছিল ৩৯% । তবে প্রথমার্ধে একের

পর এক আক্রমন করলেও গোল করতে পারেনি আলবিসেলেস্তারা। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধারা বজায় রাখে আর্জেন্টিনা। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া আলবিসেলেস্তে বাহিনী শেষ পর্যন্ত গোলের দেখা পায় ৭৮ মিনিটে । আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারের দারুণ এক ক্রস থেকে হেডে গোল করেন লুসিয়ানো গন্ডু। আর এ গোলটিই হৃদয় ভেঙেছে ব্রাজিলের। অপেক্ষাকৃত সুবিধাজনক অবস্থানে থেকেও

শেষ পর্যন্ত অলিম্পিকে যাওয়ার টিকিট কাটতে পারল না তারা। এরপর ম্যাচে আর কোন গোল না হলে জয়ের উল্লাসে ভাসে আর্জেন্টিনা। এরই সঙ্গে ২০২৪ প্যারিস অলিম্পিকের টিকিটও নিশ্চিত করে তারা। ’ যদিও শেষ মুহুর্তে দুই দলের খেলোয়ারদের মধ্যে উত্তেজনা ছাড়িয়ে পড়ে, যা পরবর্তিতে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। সম্পূর্ন ম্যাচে ব্রাজিল

১৯ টি ফাউলের বিপরীতে ৬ টি আর আর্জেন্টিনা ১৮ টি ফাউলের বিপরীতে ৩ টি হলুদ কার্ড দেখে । প্রাক অলিম্পিক টুর্নামেন্ট থেকে দুইটি দল যাবে প্যারিস অলিম্পিকে। যেখানে আর্জেন্টিনা নিশ্চিত করেছে তাদের জায়গা। ম্যাচ শেষে গোলদাতা গুন্দো বলেছেন, ‘সত্যি কথা হচ্ছে এ জয় আমাদের প্রাপ্য। আমরা কোনো

ম্যাচ হারিনি। কোয়ালিফাই করতে পারাটা দারুণ ব্যাপার। ২০০৮ সালে বেইজিং অলিম্পিকে শেষবারের মতো অলিম্পিক ফুটবলে স্বর্ণপদক জিতেছিল আর্জেন্টিনা। সেই অলিম্পিকে আর্জেন্টিনা দলে মেসি ও অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার সঙ্গে ছিলেন সার্জিও অ্যাগুয়েরোও। অপর একটি দল হতে

পারে প্যারাগুয়ে অথবা ভেনেজুয়েলা। এই দুই দলের ম্যাচে ড্র করলেই অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করবে প্যারাগুয়ে। তবে অলিম্পিকে জায়গা করে নিতে জয় পেতেই হবে ভেনেজুয়েলাকে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *