1. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  2. msthoney406@gmail.com : ২৪ ঘন্টা খবর : ২৪ ঘন্টা খবর
বিজয়-নাঈমকে ছাপিয়ে অবশেষে লিটনের ওপেনিং সঙ্গী খুজে পেল বাংলাদেশ - ২৪ ঘন্টা খেলার খবর!
সর্বশেষ:
ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়ে ডেভিড ওয়ার্নার ও মঈন আলীকে পিছনে ফেলে র‍্যাংকিংয়ে বড় লাফ আফিফের এবার টাইগারদের বিশ্বকাপ জার্সি নিয়ে বিতর্ক সমালোচনার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্রেকিং নিউজঃ নিউজিল্যান্ডে সৌম্য সরকারের সামনে এটাই শেষ সযোগ ’পাপন’ ব্রেকিং নিউজঃ বিসিবিকে দোষ দিয়ে বিদায় বেলা যে বিস্ফোরক বক্তব্য ছুড়ে দিলেন নাফিস ইকবাল পাকিস্তানকে হারানোর কৌশল জানা আছে রুমানার মাত্র পাওয়াঃ সাফজয়ী মাছুরা বাড়ি ফিরে পেলেন সংবর্ধনা-নগদ যত টাকা এশিয়া কাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগেই পাকবাহিনির বিরুদ্ধে রহস্যময় বক্তব্য রুমানার অবাক ক্রিকেটবিশ্ব, বাংলাদেশের ১ম ক্রিকেটার হিসেবে অবিশ্বাস্য এক রেকর্ড গড়তে চলেছে মৃত্যুঞ্জয় দাপুটে জয়ে শুরুতেই বাংলাদেশ-ভারতকে পেছনে ফেলল পাকিস্তান অবিশ্বাস্য হলেও সত্য আগামীকাল থাইল্যান্ডের বিপক্ষে এক সাথে মাঠে নামছে মা-মেয়ে, তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

বিজয়-নাঈমকে ছাপিয়ে অবশেষে লিটনের ওপেনিং সঙ্গী খুজে পেল বাংলাদেশ

  • আপডেট করা হয়েছে: শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৫০ বার পঠিত:

আফগানদের বিপক্ষে হারের পর পরিবর্তনের গুঞ্জন বেশ জোরেশোরেই শোনা যাচ্ছিল। সে গুঞ্জনকে সত্যি করে গতকাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে বাংলাদেশ। এর মধ্যে

সবচেয়ে বড় চমক ছিল দুই নিয়মিত ওপেনার এনামুল হক বিজয় ও নাঈম শেখকে বাদ দিয়ে দুই মেইক শিফট ওপেনার মেহেদি হাসান মিরাজ ও সাব্বির রহমানকে দিয়ে শুরু করা।

এ পরিবর্তনের ফলাফলটা হাতেনাতেই পাওয়া গেছে। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল, যে কারণে এই পরিবর্তন, সেই সাহসটা মিরাজের ব্যাটিংয়ে দেখা গেছেে এটা বলাই যায় যে বিজয়-নাঈমকে ছাপিয়ে অবশেষে লিটনের ওপেনিং সঙ্গী খুজে

পেল বাংলাদেশ। অনেকের কাছে চমক হলেও দুই ওপেনারকে বাদ দেওয়াটা টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য অবশ্যকর্তব্য হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আফগানদের বিপক্ষে বিজয় ও নাঈমের ব্যাটিং দেখে মনেই হয়নি যে তাঁরা টি২০ খেলতে নেমেছেন। মুজিবের বিপক্ষে দুই

ওপেনারকেই অসহায় মনে হয়েছিল। মুজিবের বিষয়টা তাও মানা যায়, কুড়ি ওভারের ফরম্যাটে এ অফস্পিনার বেশ পরিচিতই। তাঁরা পেসার ফজলহক ফারুকির ফুলটসেও শট খেলতে পারেননি। অবশ্য শট খেলার চেষ্টা তো দূরের কথা, তাঁরা ব্যাটে বল লাগাতেই পারছিলেন না। দলকে একটি ভালো শুরু কিংবা বড়

স্কোরের ভিত তৈরির কোনো রকম চেষ্টাই তাঁদের মধ্যে দেখা যায়নি। উইকেটে টিকে থাকতেই তাঁরা সংগ্রাম করেছেন। তাঁদের এ জঘন্য ব্যাটিংয়ের প্রভাব পুরো দলের ওপর পড়ে। তাই বাধ্য হয়েই ওপেনিংয়ে

পরিবর্তন আনতে হয়। এ পরিবর্তন যে কতটা প্রয়োজনীয় ছিল, সেটা প্রথম বলেই বুঝিয়ে দেন মিরাজ। মিরাজের না হয় বিপিএল ও একটি ওয়ানডেতে ওপেনিংয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে, কিন্তু সাব্বির তো এ পজিশনে একেবারে অনভ্যস্ত। তাই বলে

ভড়কে যাননি তিনি, প্রথম ওভারেই প্যাডেল সুইপ করে চার মারেন তিনি। একটি চার ছাড়া অবশ্য সাব্বির আর কিছু করতে পারেননি, তবে তাঁর শরীরী ভাষায় ভড়কে যাওয়া ভাবটা ছিল না। আর মিরাজ

তো ডাকাবুকো ব্যাটিং করেছেন। একটি বলেও লঙ্কানদের চেপে বসতে দেননি তিনি। চতুর্থ ওভারে স্পিনার থিকসেনাকে যেভাবে ডাউন দ্য উইকেটে এসে মিরাজ ছয় মেরেছেন, তাতে দলের মনোবল নিশ্চিতভাবেই বেড়েছে। আর

পঞ্চম ওভারে পেসার আসিথা ফার্নান্দোকে তিনি স্কুপ করে ছয় মেরেছেন, পরের বলেই দুর্দান্ত ড্রাইভে চার! মিরাজের কল্যাণেই পাওয়ার প্লেতে ৫৫ রান ওঠে। তার চেয়েও বড় বিষয়, ২৬ বলে ৩৮ রানের ভয়ডরহীন ইনিংসটি দিয়ে দলের ভেতর সাহসটা ছড়িয়ে দিয়েছেন মিরাজ।

খবরটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 24hourskhobor.com
Site Customized By NewsTech.Com