বন্ধু’ শান্তর captin হওয়া নিয়ে যা বললেন মিরাজ!

‘বন্ধু নে, নে বন্ধু নে’- সিলেট টেস্টে রিভিউ নেওয়ার জন্য এভাবেই নাজমুল হোসেন শান্তকে রাজি করাচ্ছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনেও এটি নিয়ে মজাও করেন শান্ত। দীর্ঘ দিনের বন্ধুত্বের খা”তিরেই হয়তো ওভাবে বলেছিলেন মিরাজ। বন্ধুর নেতৃত্ব নিয়ে

নিজের মুগ্ধতার কথাও বললেন বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকে শুরু করে আন্তর্জাতিক অঙ্গন মিলিয়ে একসঙ্গে পথচলার প্রায় এক দশক পার করেছেন মিরাজ এবং শান্ত। অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে ক্যারিয়ারের লম্বা সময় মিরাজের নেতৃত্বেই খেলেছেন শান্ত। ঘরের মাঠে ২০১৬ সালের যুব বিশ্বকাপেও শান্তর অধিনায়ক

ছিলেন মিরাজ। জাতীয় দলেও শান্তর আগে অভিষেক হয়েছে মিরাজের। বাং”লাদেশের পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবেও ভাবা হচ্ছিল তার নাম। গত এক-দেড় বছরে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এগিয়ে গেছেন শান্ত। যার সৌজন্যে ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর এবার টেস্টেও নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাঁহাতি টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান। তিন ওয়ানডের পর সিলেটে শান্তর

অধিনায়কত্বে প্রথমবার টেস্ট খেলেছেন মিরাজ। ওই ম্যাচে শান্তর নেতৃত্বের প্রশংসা হয়েছে অনেক। দলের প্রধান কোচ চান্দিকা হাথুরুসিংহেও ভবিষ্যত অধিনায়ক হিসেবে সবুজ সং”কেত দিয়েছেন শান্তর জন্য। শান্ত ভবিষ্যতে লম্বা সময়ের জন্য অধিনায়কত্ব পাবেন কিনা, সেই সিদ্ধান্ত নেবে

ক্রিকেট বোর্ড। তবে আপাতত তার নেতৃত্বের যে পরীক্ষা পর্ব চলছে, সেটিতে মুগ্ধ দীর্ঘ দিনের বন্ধু মিরাজও। মিরপুরে বুধবার দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে কাছ থেকে শান্তর অধিনায়কত্ব দেখার পর নিজের মূ”ল্যায়ন জানালেন মিরাজ। “শান্ত খুব ভালো (অধিনায়কত্ব)

করছে। এটা টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত, তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ও খুব ভালো করছে। সবাই ওকে সাহায্য করছে। নতুন কোনো অধিনায়কের জন্য কাজটা অনেক কঠিন হয়। সবাই যদি সহযোগিতা করে, তাহলে জিনিসটা অনেক ভালো হয়। সিনিয়র ক্রিকেটাররা ওকে সাহায্য করছে। আমরা

যারা আছি, পেছনে থেকে অনেক সাহায্য করছি। আর অবশ্যই, এবং মাঠে খুব ভালো ভালো সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।” কিছু বিষয় এদিক-ওদিক হলে হয়তো শান্তর আগে অধিনায়কত্ব পেতে পারতেন মিরাজ। তবে তিনিও যে নেতৃত্বের বিবেচনায় বোর্ডের ভাবনায় আছেন, সেই বার্তা মিলেছে নিউ জিল্যান্ড সফরের দলে। সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে

চলতি মাসে কিউইদের মাঠে হতে যাওয়া ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে শান্তর ডেপুটি করা হয়েছে মিরাজকে। আপাতত এসব নিয়ে বেশি ভাবছেন না মিরাজ। “এটা তো পু”’রোপুরি বোর্ডের সি”দ্ধান্ত। ক্রিকেট বোর্ড হয়তো মনে করেছে, এই সিরিজের জন্য আমাদের দু”জনকে রাখলে ভালো হবে। তাই রেখেছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *