1. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  2. msthoney406@gmail.com : ২৪ ঘন্টা খবর : ২৪ ঘন্টা খবর
এবার ব্যাটিং ঝড় তুলতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওপেনিংয়ের ভাবনায় সাব্বির-মিরাজ - ২৪ ঘন্টা খেলার খবর!
সর্বশেষ:
তোলপাড় ক্রিকেট বিশ্ব, ছক্কা মারার অপরাধে সতীর্থের মুখে ঘুসি মেরে দিলেন ক্রিকেটার! ওপেনিং নাকি তিন-চারে, লিটনের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা এক ভারতীয় ব্যাটারের কাছে হেরে গেলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল দক্ষিণ আফ্রিকায় নারী বিশ্বকাপের গ্রুপ ও সময়সূচি প্রকাশ করেছে আইসিসি, দেখুন বাংলাদেশের গ্রুপ স্বাগতিকের সুবিধা চাই না, স্পোর্টিং উইকেট চাই : বাংলাদেশ কোচ চরম দুঃসংবাদঃ বাংলাদেশি কোনো আম্পায়ার নেই বিশ্বকাপে টাইগারদের বিপক্ষে খেলতে অধীর আগ্রহে আছেন ’উইলিয়ামসন’ তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া, বিশ্বকাপ শুরুর আগে টাইগারদের সঙ্গে বিসিবি করল বিরাট জালিয়াতি হটাৎ করে লিটনের ব্যাটিং পজিশন ঠিক করে দিলেন সিডন্স টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আম্পায়ারদের তালিকা প্রকাশ

এবার ব্যাটিং ঝড় তুলতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওপেনিংয়ের ভাবনায় সাব্বির-মিরাজ

  • আপডেট করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১০৮ বার পঠিত:

ঘুরে ফিরিয়ে কত জনকেই তো খেলানো হলো। তবুও আশার আলো দেখাতে পারল না কোনো উদ্বোধনী জুটি। বাধ‍্য হয়ে তাই একরকম জুয়া খেলার কথা ভাবছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টিকে থাকার লড়াইতে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে সাব্বির রহমান ও মেহেদী হাসান মিরাজকে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কখনও ওপেন করেননি সাব্বির। দুবাইয়েই ২০১৮ সালে ওয়ানডে সংস্করণে হওয়া এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে ইনিংসে উদ্বোধন করেছিলেন মিরাজ।

২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেন তিনি। পরের বছর সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সবশেষ এই সংস্করণে খেলেন সাব্বির।

নিয়মিত ওপেনারদের টানা ব‍্যর্থতার কারণেই টি-টোয়েন্টিতে বিকল্প চিন্তা-ভাবনা দলের। গত এক বছরে এই সংস্করণে ২৫ ইনিংসে বাংলাদেশের কেবল একটি উদ্বোধনী জুটি ছুঁতে পেরেছে পঞ্চাশ। সবশেষ ১৩ ইনিংসের নয়টিতে শুরু জুটি ভেঙেছে দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগে।

পাওয়ার প্লেতে ওপেনারদের ঝড় তোলার ঘটনা তো বিরল। সবশেষ ২৩ ইনিংসে কোনো শুরুর জুটি পার করতে পারেনি প্রথম ৬ ওভার। এশিয়া কাপে নিজেদের প্রথম ম‍্যাচে গত মঙ্গলবার আফগানিস্তানের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। সেই ম‍্যাচে মোটেও ভালো করতে পারেননি এনামুল হক ও মোহাম্মদ নাঈম শেখ।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্ত একটি মৌসুম কাটিয়ে তিন সংস্করণেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা এনামুলের মোটেও ভালো কাটেনি টি-টোয়েন্টি সংস্করণ। ফেরার পর থেকে ৭ ম‍্যাচে ১২.৮০ গড়ে করেছেন মোটে ৯০ রান। স্ট্রাইক রেট কেবল ৯৫.৭৪।

মন্থর ব‍্যাটিংয়ের জন‍্য সব সময় সমালোচনার মুখে থাকা নাঈম জায়গা হারিয়ে ফেলেছিলেন দলে। ঘরোয়া ক্রিকেটে তেমন কিছু না করেই আবার দলে ফেরেন তিনি। মাত্র ৮ বলে ৬ রান করেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

৭ উইকেটে হেরে যাওয়া ম‍্যাচে নাঈম ও এনামুলের ব‍্যাটিং মোটেও পছন্দ হয়নি টিম ম‍্যানেজমেন্টের। মুজিব উর রহমানের ক‍্যারম বলে এলবিডব্লিউ হয়ে যাওয়া নাঈমকে আরেক রহস‍্য

স্পিনার মাহিশ থিকসানার সামনে ফেলতে চান না তারা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এনামুলের প্রবল ভোগান্তির পর ডানহাতি এই ওপেনারের উপর আপাতত দল আস্থা পাচ্ছে না বলেই শোনা যাচ্ছে।

লিটন দাসের চোটে ওপেনিংয়ের জন‍্য প্রথম পছন্দ ছিলেন এনামুল। এশিয়া কাপের দলে আরেক বিশেষজ্ঞ ওপনার পারভেজ হোসেন। তবে এখনই তাকে নিয়মিত খেলানোর

আস্থা ভরসা না দল। তাই মিডল অর্ডার ব‍্যাটসম‍্যান নুরুল হাসান সোহানের চোটে দলে আসা নাঈম প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ শেষ পর্যন্ত একাদশেও জায়গা পেয়ে যান।

ওপেনিংয়ে আরেকটি জায়গার জন‍্য মিরাজ, শেখ মেহেদী, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম ছিলেন বিবেচনায়। ঢাকায় দুটি প্রস্তুতি ম‍্যাচে মিরাজ ওপেনিং করে বেশ ভালো

খেলেছিলেন মিরাজ। তাছাড়া বিপিএলে ওপেনিংয়ে ভালো করার অভিজ্ঞতাও আছে তার। নাঈম, এনামুলের ব‍্যর্থতায় শেষ পর্যন্ত সেই সুযোগ হয়তো পেতে যাচ্ছেন তিনি।

অনেকটা বিস্ময় জাগিয়েই সাব্বিরকে ফেরানো হয় এশিয়া কাপের দলে। ২০১৯ সালে দলে জায়গা হারানোর পর তেমন কিছু করতে পারেননি তিনি। তবে অন‍্যদের ব‍্যর্থতায় ফের তার জন‍্য খুলে যায় জাতীয় দলের দুয়ার।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তিন নম্বরে বেশ সফল সাব্বির। ২৭ ম‍্যাচে ১২৮.১৪ গড়ে তার রান ৭২৪। সর্বোচ্চ ৮০। ২৮ ছক্কার ২৩টিই এই পজিশনে। এবার আরেক ধাপ এগিয়ে তিনি খেলতে পারেন ওপেনিংয়ে। মিরাজের মতো সাব্বিরেরও আছে বিপিএলে ওপেনিংয়ে খেলার অভিজ্ঞতা।

দুবাই ইন্টারন‍্যাশনাল স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এর আগের দিন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদের সংবাদ সম্মলেন এলো ওপেনিংয়ে

বাংলাদেশের দৈন‍্যর প্রসঙ্গ। মনে করিয়ে দেওয়া হলো, দেশে থাকতে বলেছিলেন ওপেনিং নিয়ে হতে পারেন পরীক্ষা-নিরীক্ষা। সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেন না মাহমুদ।

“ওপেনিংয়ে হতেও পারে কালকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা। বলা যায় না। আমাদের ব‍্যাটিংয়ের উন্নতিটা খুব প্রয়োজন। আমাদের টপ অর্ডারে সবচেয়ে বড় সমস‍্যা, উদ্বোধনী জুটি ক্লিক করছে না কোনোভাবেই। আমরা অনেক জুটিকেই চেষ্টা করেছি। লিটন দাসকে খুব মিস করছি এই টুর্নামেন্টে। আশা করি, যারাই খেলবে ওপেনিংয়ে, তাদের যে পরিকল্পনা থাকবে, সেটা অনুযায়ী ব‍্যাট করবে।”

“প্রথম বলেই ওদের কেউ মারতে গিয়ে আউট হতে পারে, এটা ঠিক আছে, আমি মেনে নেব। যখন ইনটেন্ট দেখি না, তখনই আমাদের কষ্ট হয় বেশি। আমি ওই ইনটেন্টই দেখতে চাই। মানসিকতার পরিবর্তন দেখতে চাই।”

টিম মিটিংয়ে বুধবার সাব্বির, মিরাজকে ওপেনিংয়ে খেলানোর ব‍্যাপারে আলোচনা হয়েছে। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ম‍্যাচের দিনই। যারাই ওপেন করুক তাদের কাছে দলের চাওয়াটা জানিয়ে রাখলেন মাহমুদ।

“এক সঙ্গে দুটি চাপ নেওয়া যাবে না। হয় ৬ ওভারে ৫০ থাকতে হবে ৩-৪ উইকেটে, নয়তো ৬ ওভারে ৩৫-৪০ থাকুক কোনো উইকেট না হারিয়ে। যে কোনো একটা হতে হবে। দুইটা চাপ যদি এক সঙ্গে হয়, তাহলে পরে এটা নিয়ন্ত্রণ করা খুব কঠিন হয়ে পড়ে।”

খবরটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 24hourskhobor.com
Site Customized By NewsTech.Com